ঢাকা সকাল ৭:৫৭, শনিবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

তারেক জিয়ার ঘনিষ্ট বন্ধু ব্যারিস্টার কায়সার কামাল কারাগারে

জুনিয়র আইনজীবীর স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়ার অভিযোগে গ্রেপ্তার বিএনপির আইনবিষয়ক সম্পাদক ও তারেক জিয়ার ঘনিষ্ট ব্যারিস্টার কায়সার কামালকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) বিকেলে মহানগর হাকিম দেবব্রত বিশ্বাস ব্যারিস্টার কায়সার কামালের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে এ আদেশ দেন। নথি পর্যালোচনার মামলার আদেশ দেন আদালত।

এর আগে দুপুরে ব্যারিস্টার কায়সার কামালকে আদালতে তোলা হয়। আদালতে ব্যারিস্টার কায়সার কামালের তিন দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ।

কলাবাগান থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আসাদুজ্জামান বলেন, ‘গতকাল বুধবার রাতে পান্থপথের স্কয়ার হাসপাতালের সামনে থেকে কায়সার কামালকে আটক করা হয়। তার সহকারী অপর আইনজীবী আতিকুর রহমানের দায়ের করা মামলায় পরে তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।’

আসাদুজ্জামান আরও জানান, ‘মামলায় আতিকুর রহমান প্রতারণার অভিযোগ তুলেছেন। মামলার একমাত্র আসামি ব্যারিস্টার কায়সার কামাল।’

পুলিশের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা জানান, আতিকুর রহমানের বাসায় যাওয়া-আসার সুবাদে কায়সার কামালের সঙ্গে তার স্ত্রীর পরিচয় হয়। তার সূত্র ধরে কায়সার কামাল তার স্ত্রীকে নিয়মিত উপহার পাঠাতেন। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সন্দেহ দানা বাঁধে। কিন্তু এর কোনো সুরাহা না পেয়ে ওই ব্যারিস্টার চুপ করে থাকেন। এরপর সিনিয়র আইনজীবী কায়সার কামাল ও তার স্ত্রীর একটি অনৈতিক সম্পর্ক রয়েছে সেটি টের পান আতিকুর রহমান।

তিনি বলেন, এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার তাদের দেখা করার দিন ছিল। এমন তথ্য জানতে পেরে স্ত্রী ও কায়সার কামালকে ফলো করতে করতে তিনি দেখতে পান তার স্ত্রীর অফিসের সামনে কায়সার কামাল। অফিসের সামনে দেখা করে দুজনে কথা বলার মধ্যেই হঠাৎ উপস্থিত হয়ে স্ত্রী ও কায়সারের সঙ্গে বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন তিনি। এক পর্যায়ে আশপাশের লোকজন জড়ো হলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কায়সারকে থানায় নিয়ে যায়।

এই ঘটনায় কায়সারের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগে দণ্ডবিধির ৪২০ ধারায় মামলা করেন আতিকুর। গত বছরের ১ ফেব্রুয়ারি থেকে স্ত্রীর সঙ্গে কায়সারের পরকীয়া সম্পর্ক রয়েছে বলে এজাহারে উল্লেখ করেছেন এই আইনজীবী।

ব্যারিস্টার কায়সার কামাল বিএনপির আইনবিষয়ক সম্পাদক ও জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের যুগ্ম আহ্বায়ক। দুর্নীতির মামলায় দণ্ডিত হয়ে কারাবন্দী বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে মামলা পরিচালনাকারী দলে তিনি রয়েছেন। জানা গেছে কায়সার কামাল দুটি বিয়ে করেছেন। প্রথম স্ত্রী স্বামীর অনৈতিক কর্মকান্ড দেখে ২০১৩ সালে তাকে ডিভোর্স দেন। সে ঘরে একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। ২য় স্ত্রীর সঙ্গে কায়সার কামাল ইস্কাটনে বসবাস করছেন।

 

বিজনেস বাংলাদেশ/বিএইচ

এ বিভাগের আরও সংবাদ
//graizoah.com/afu.php?zoneid=3354715