ঢাকা সকাল ৬:৩৫, বৃহস্পতিবার, ২৮শে মে, ২০২০ ইং, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দুই প্রতিষ্ঠান ও ১৬ ব্যক্তির বিরুদ্ধে শুল্ক গোয়েন্দার মামলা

৮৭০ কোটি টাকা পাচারের অভিযোগে দুই প্রতিষ্ঠান ও ১৬ ব্যক্তির বিরুদ্ধে গতকাল পল্টন থানায় মামলা করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর। প্রতিষ্ঠান দুটি পোল্ট্রি ফিডের মূলধনী যন্ত্রপাতি আমদানির আড়ালে আমদানি নিষিদ্ধ সিগারেট, এলইডি টেলিভিশন, ফটোকপিয়ার মেশিন ও মদ আমদানি করে। শুল্ক গোয়েন্দাদের তদন্তে মিথ্যা ঘোষণায় পণ্য আমদানি এবং অর্থপাচারের বিষয়গুলো ধরা পড়ে।

অর্থপাচার করায় প্রধান আসামি হিসেবে প্রতিষ্ঠান দুটির মালিক আব্দুল মোতালেবের নামে মামলা করা হয়েছে। এ কাজে সহযোগিতা করার জন্য আরো ১২ জনের বিরুদ্ধেও মামলা করা হয়।

শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. সহিদুল ইসলাম বলেন, অর্থপাচারের অভিযোগে দুই প্রতিষ্ঠানের মালিক এবং এ কাজে সহযোগিতা করায় একাধিক মামলা করা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে এসব প্রতিষ্ঠানের অর্থপাচারের প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে।

সূত্র জানায়, প্রতিষ্ঠান দুটির ১২টি কনটেইনার আটক করে মিথ্যা তথ্যে অর্থপাচারের এ ভয়াবহ তথ্য-প্রমাণ পাওয়া যায়। তদন্তে দেখা যায়, এর আগে মেসার্স হেনান আনহুই অ্যাগ্রো এলসি ও অ্যাগ্রো বিডি অ্যান্ড জেপি ৪৬টি মোট ৭৮টি কনটেইনারে ১৫টি এলসির বিপরীতে মিথ্যা ঘোষণায় পণ্য খালাস করেছে। প্রতিষ্ঠান দুটি মোট ১৫টি বিল অফ এন্ট্রিতে ৮৭০ কোটি ৮৬ লাখ ২১ হাজার ৩৮৩ টাকা পাচার করেছে।

বিজনেস বাংলাদেশ-বি/এইচ

এ বিভাগের আরও সংবাদ