ঢাকা সকাল ৮:৪৭, শনিবার, ৪ঠা জুলাই, ২০২০ ইং, ২০শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দলের বাইরে থাকাটা বড় উপকার হয়েছে : সরফরাজ

ব্যক্তিগত ও অধিনায়ক হিসেবে ব্যর্থ হওয়ায় পাকিস্তান লে নিজের জায়গা হারিয়েছিলেন সরফরাজ আহমেদ। তবে দীর্ঘদিন পর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজের দলে ফিরেছেন ২০১৭ সালে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয় করা অধিনায়ক সরফরাজ। দলের বাইরে থাকাটা তার জন্য বড় উপকারই হয়েছে বলে জানান সরফরাজ। কারণ ঐসময় ভুল-ত্রুটি ও ফিটনেস নিয়ে কাজ করেছেন তিনি। পাকিস্তানের একটি অনলাইনের লাইভ সেশনে তেমনটাই জানান সরফরাজ।

তিনি বলেন, ‘দলের বাইরে থাকায় নিজেকে নিয়ে বেশিরভাগ ব্যস্ত সময় পার করেছি। শেষ তিন মাসে কোয়ারেন্টাইনে পরিশ্রম করেছি। নিজেকে নতুনভাবে তৈরি করার ভালো সুযোগ পেয়েছিলাম। নিজের ফিটনেসের উন্নতি করেছি, এটি আমি উপলব্ধি করতে পারছি’।

দলের বাইরে থাকলেও, ফিটনেস ও নিজের পারফরমেন্সের উন্নতির জন্য প্রধান কোচ ও নির্বাচক মিসবাহ উল হকের সঙ্গে সর্বদা যোগাযোগ করেছেন বলে জানান সরফরাজ, ‘মিসবাহ ভাইয়ের সঙ্গে আমার প্রায়ই কথা হয়েছে। তিনি আমাকে ফিটনেসের উন্নতির জন্য অনেক পরামর্শ দিয়েছেন এবং আমি যে ভুলগুলো করেছিলাম সেগুলো ধরিয়ে দিয়েছিলেন। আমি সেগুলো নিয়ে নিজের মত করে কাজ করেছি’।

গত বছরের অক্টোবরে অধিনায়কত্ব হারানোর সঙ্গে পাকিস্তান দল থেকে বাদ পড়েন সরফরাজ। এতে কেন্দ্রীয় চুক্তিদের অবনতি ঘটে তার। ‘এ’ থেকে ‘বি’ ক্যাটাগরিতে নেমে যান তিনি।

দল থেকে বাদ পড়লেও ফর্ম ফিরে পেতে প্রথম শ্রেনির ক্রিকেটে যোগ দেন সরফরাজ। কিন্তু যথাযথভাবে সেখানে নিজেকে ফিরে পেতে পারেননি তিনি। পিএসএলে ২১.১৪ গড়ে ১৪৮ রান করেন ৩২ বছর বয়সী সরফরাজ। তারপরও উন্নতির জন্য হাল ছাড়েননি। কঠোর পরিশ্রম করেছেন তিনি।

সরফরাজ বলেন, ‘আমি পিএসএলও ভালো করতে পারিনি। তবে হাল ছাড়িনি। কারণ আমাকে দলে ফিরতে হবে। তবে ৭-৮ মাস জাতীয় দলের বাইরে থাকায় আমার উপকারই হয়েছে। এ সময় নিজেকে নিয়ে ভালোভাবে কাজ করতে পেরেছি’।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য ঘোষিত ২৯ জনের স্কোয়াডে আছেন সরফরাজ।

বিজনেস বাংলাদেশ/ এস শিকদার

এ বিভাগের আরও সংবাদ
//graizoah.com/afu.php?zoneid=3354715