ঢাকা দুপুর ১:১৭, সোমবার, ২৫শে মে, ২০২০ ইং, ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

রামগড়ে গুইমারার সাবজোন কমান্ডার কতৃক ঘরে ঘরে ত্রান সামগ্রী বিতরন

গুইমারা  রিজিয়নের আওতাধীন গুইমারা জোন কতৃক রামগড়ে করোনা ভাইরাস (কোভিড ১৯) এর কারনে কর্মহীন হত দরিদ্র কর্মজীবিদের মাঝে  ২৩/০৫/২০ ইং   শনিবার দুপুর হইতে রামগড়ের বিভিন্ন দুর্গম এলাকায় ত্রান সামগ্রী বিতরন করেন  সাব জোন  কমান্ডার মেজর জুনায়েদ বিন কবির জি।

তিনি দুপুর ২ টা হইতে রামগড় উপজেলার বিভিন্ন  দুর্গম অঞ্চলে গরীব দুস্থদের মাঝে  ঘরে ঘরে গিয়ে এ ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন।হতদরিদ্র এসমস্ত জনগন সাব জোন কমান্ডার মেজর জুনায়েদ বিন কবীর জি এর হাতে এ দুঃসময়ে হাতে হাতে ত্রান পেয়ে সবাই উচ্ছ্বসিত।

এই সমস্ত ত্রাণসামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল,  ডাল, তেল, আটা, সাবান, আলু, পেঁয়াজ।
এ সময় ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ ছাড়াও এলাকার সকলের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে মাইকিং করে সমস্ত ধরনের জনসমাগম থেকে সকলকে বিরত থাকার জন্য   অনুরোধ করেন এবং সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে চলার জন্য সচেতন করা হয়। একই সাথে আদেশ অমান্য কারী রামগড় এবং সোনাইপুল বাজারে   যে সমস্ত দোকান  নির্দিষ্ট সময়ের পরও খোলা ছিল তা সঠিক সময়ে বন্ধ করে সরকার প্রদত্ত আইন অনুসরন করার আহ্বান জানান।অন্যথায়  নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের  মোবাইল কোর্টের  মাধ্যমে অর্থদন্ড সহ কঠোর ব্যবস্হা নেওয়া হবে বলে হুশিয়ারি উচ্চারন করেন। এসময় তিনি স্হানীয় সাংবাদিক দের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন,এ এলাকায় সেনাবাহিনী সহ ,উপজেলা প্রশাসনের যৌথ অভিযানের কারনে ঈদ সামনে থাকার পরও জনসাধারণ রাস্তায় বের না হয়ে আইন মেনে বাড়ী ঘরে অবস্থান করছেন। তিনি আরও বলেন জনসাধারণের স্বার্থে ঈদের পরেও  সেনাবাহিনীর ত্রান বিতরন এবং জনসচেতনতা মুলক অভিযান  পরিচালনা অব্যাহত থাকবে।

এ সময় সাব জোন কমান্ডার  মেজর জুনায়েদ বিন কবির জি এর সাথে ছিলেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) সজীব কান্তি রুদ্র, লেফটেন্যান্ট রাইয়ান এবং  রামগড় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ শামসুজ্জামান ও সাংবাদিক বৃন্দ।

বিজনেস বাংলাদেশ/ইমরান
এ বিভাগের আরও সংবাদ