ঢাকা বিকাল ৫:৪১, রবিবার, ৫ই জুলাই, ২০২০ ইং, ২১শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

পুলিশ কর্মকর্তার মানবিকতা ছড়িয়েছে অসহায় মানুষের কাছে

চট্টগ্রাম জেলার সাতকানিয়া সার্কেল এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান মোল্যা করোনা প্যান্ডেমিকের এই দুঃসময়ে মানুষের পাশে থাকার অদম্য প্রত্যয়ে একের পর এক মানবিক উদ্যোগ গ্রহণ করে চলেছেন। এরই ধারাবাহিকতায় আসন্ন ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে দুঃস্থ ও অসহায় মানুষের মধ্যে ঈদের আনন্দ ছড়িয়ে দিতে আয়োজন করেছেন এক বিশেষ মানবিক উদ্যোগ ” ঈদ আনন্দ ২০২০ “।

তিনি আজ ২১ মে বেলা ১২ ঘটিকায় ব্যক্তিগত এই মানবিক উদ্যোগের মাধ্যমে ১০০ টি দুঃস্থ ও অসহায় পরিবারকে প্রয়োজনীয় ঈদের খাদ্য সামগ্রী প্রদান করেছেন। লোহাগাড়া থানার আমিরাবাদে অবস্থিত সিটিজেন পার্ক নামক কমিউনিটি সেন্টারে স্বাস্থ্য বিধি মেনে দু:স্থ ও অসহায় পরিবারের সদস্যদের মধ্যে এই খাদ্য উপহার প্রদান করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানেও বিশেষত্ব পরিলক্ষিত হয়।

টেবিলে টেবিলে সাজিয়ে রাখা হয় সেমাই, লাচ্ছা সেমাই, চিনি, গুড়া দুধ, সয়াবিন তেল, নুডলস ও চাল। যেন সাজানো পরিপাটি ঈদ বাজার। দুঃস্থ ও অসহায় লোকজন সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক স্বাস্থ্য বিধি মেনে হাত ধুয়ে, মাস্ক পড়ে ও সামাজিক দূরত্ব মেনে উক্ত সাজানো খাদ্য সামগ্রী থেকে নিজ হাতে তুলে নেন নিজেদের প্রয়োজনীয় খাবার। অত্যন্ত সুশৃঙ্খল ও দৃষ্টিনন্দন ভাবে এই কার্যক্রম সম্পন্ন হয়। লোহাগাড়া থানা পুলিশের সদস্যরা উক্ত কার্যক্রমে তাঁকে সহায়তা করেন।

এই সকল কার্যক্রম বিষয়ে সাতকানিয়া সার্কেল এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান মোল্যা বলেন, করোনা আমাদের জীবন ও জীবিকার উপর চরম নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে। এই সময় অনেক নিম্ব আয়ের মানুষ ও মধ্যবিত্ত পরিবার খাদ্য কষ্টসহ আর্থিক অনটনে পড়েছেন। শুরুতে সামাজিক দায়বদ্ধতার খাতিরে আমি সহ বাংলাদেশ পুলিশের প্রতিটি সদস্য এই সকল বিপদগ্রস্ত মানুষের পাশে দাড়ায়।

পরবর্তীতে অনেকেই আমাকে ফোন করে এবং মেসেজ দিয়ে খাদ্যসহ বিভিন্ন সহায়তা চান। এই উদ্ভূত চাহিদার প্রেক্ষিতে আমি বিভিন্ন প্রোগ্রাম নিয়ে বিপদগ্রস্ত মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করছি। ইতিপূর্বে এস এম এস এর ভিত্তিতে প্রবাসীদের পরিবারের বাড়ি বাড়ি খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছি।

মধ্যবিত্ত পরিবার এর পাশে থেকেছি। আজকে আসন্ন ঈদ উল ফিতর ২০২০ উপলক্ষে ১০০ জন নিম্ন আয়ের, হতদরিদ্র ও প্রান্তিক মানুষদের মধ্যে ঈদের আনন্দ ছড়িয়ে দিতে খাদ্য উপহার প্রদান করেছি। আশা করছি এই একশো টি পরিবার ঈদের দিন এই খাদ্য সামগ্রী দিয়ে পেট ভরে খেতে পারবে। দুঃখের মধ্যেও তারা কিছুটা আনন্দপাবে। তাদের আনন্দে আমরাও আনন্দিত হব।

 

বিজনেস বাংলাদেশ / আতিক

এ বিভাগের আরও সংবাদ
//graizoah.com/afu.php?zoneid=3354715