আজ মঙ্গলবার | ১৮ জুন, ২০১৯ ইং
| ৪ আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ১৩ শাওয়াল, ১৪৪০ হিজরী | সময় : রাত ৩:২৯

মেনু

১০ উইকেটে জিতল নিউজিল্যান্ড

১০ উইকেটে জিতল নিউজিল্যান্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক :
শনিবার, ০১ জুন ২০১৯
৯:৪৯ অপরাহ্ণ
49 বার

শ্রীলঙ্কাকে অল্প রানে গুটিয়ে দিয়ে জয়ের ভিত গড়ে দিয়েছিলেন দুই পেসার ম্যাট হেনরি ও লোকি ফার্গুসন। দুই ওপেনারের ফিফটিতে নিউজিল্যান্ড ম্যাচ জিতল সহজেই। শ্রীলঙ্কাকে উড়িয়ে দিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করেছে গত আসরের ফাইনালিস্টরা।

কার্ডিফে শনিবার দুই দলের প্রথম ম্যাচে আগে ব্যাট করতে নেমে ২৯.২ ওভারে ১৩৬ রানে অলআউট হয় শ্রীলঙ্কা। নিউজিল্যান্ড সেটি পেরিয়ে যায় ১০ উইকেট আর ২০৩ বল হাতে রেখে। বিশ্বকাপে ১০ উইকেটে জয়ের ১১তম ঘটনা এটি।

সোফিয়া গার্ডেনে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শ্রীলঙ্কা ধাক্কা খায় শুরুতেই। প্রথম বলে চার মেরে শুরু করেছিলেন লাহিরু থিরিমান্নে। ম্যাট হেনরির পরের বলেই এলবিডব্লিউ হন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। নিউজিল্যান্ড উইকেটটা পেয়েছে অবশ্য রিভিউ নিয়ে।

ব্যক্তিগত ৯ রানে ফিরতে পারতেন আরেক ওপেনার দিমুথ করুনারত্নেও। তবে ভাগ্যের ছোঁয়ায় বেঁচে যান লঙ্কান অধিনায়ক। ট্রেন্ট বোল্টের বল করুনারত্নের ব্যাট ছুঁয়ে অফ স্টাম্পে লাগলেও বেল পড়েনি!

তিনে নামা আরেক বাঁহাতি কুশল পেরেরা আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে শুরুর ধাক্কা সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। করুনারত্নের সঙ্গে গড়েছিলেন ৪২ রানের জুটি। এরপরই জোড়া ধাক্কা। হেনরি পরপর দুই বলে তুলে নেন দুই উইকেট।

ডানহাতি পেসারকে ছক্কায় উড়াতে গিয়ে বল আকাশে তুলে পেরেরা ফেরেন ২৪ বলে ২৯ রান করে। গোল্ডেন ডাকের শিকার কুশল মেন্ডিস। দ্বিতীয় স্লিপে বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে দারুণ এক ক্যাচ নেন মার্টিন গাপটিল।

এরপর নিয়মিত বিরতিতেই উইকেট হারিয়েছে শ্রীলঙ্কা। হেনরির হ্যাটট্রিক বল চারে শুরু করা ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ফেরেন ওই ৪ রানেই। প্রথমবারের মতো আক্রমণে আসা লোকি ফার্গুসনের বাড়তি পেসে এলবিডব্লিউ হন ডানহাতি ব্যাটসম্যান।

অভিজ্ঞ অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুসও উইকেট পতনের স্রোতে বাঁধ দিতে পারেননি। বরং ৯ বল খেলেও ফিরেছেন শূন্য রানে। কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের লেংথ বলে প্রাক্তন লঙ্কান অধিনায়ক ক্যাচ দেন উইকেটের পেছনে। পরের ওভারে ফার্গুসনের শিকার জীবন মেন্ডিস

একটা সময় ১ উইকেটে ৪৬ থেকে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ তখন ৬ উইকেটে ৬০, ১৪ রানের মধ্যে নেই ৫ উইকেট! ১৯৭৫ বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার সর্বনিম্ন ৮৬ রানের রেকর্ডটা নতুন করে লেখার শঙ্কা জেঁকে বসেছিল ভালোভাবেই।

শ্রীলঙ্কাকে সেই লজ্জায় পড়তে দেননি করুনারত্নে ও থিসারা পেরেরা। সপ্তম উইকেটে দুজন গড়েন ৫০ বলে ৫২ রানের জুটি। থিসারাকে ফিরিয়ে এ জুটি ভাঙেন নিউজিল্যান্ড একাদশের একমাত্র স্পিনার মিচেল স্যান্টনার। বাঁহাতি স্পিনারকে ছক্কায় উড়াতে গিয়ে বাউন্ডারিতে ক্যাচ দেন ২৩ বলে ২ ছক্কায় ২৭ রান করা থিসারা।

এরপর আর বেশিক্ষণ টেকেনি শ্রীলঙ্কার ইনিংস।লাসিথ মালিঙ্গাকে ফিরিয়ে শ্রীলঙ্কার ইনিংস গুটিয়ে দেন ফার্গুসন। এক প্রান্ত আগলে রেখে শেষ পর্যন্ত ৮৪ বলে ৪ চারে ৫২ রানে অপরাজিত ছিলেন করুনারত্নে। বিশ্বকাপের ইতিহাসে মাত্র দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে ইনিংসজুড়ে ব্যাট ক্যারি করার কীর্তি গড়েন তিনি।

২২ রানে ৩ উইকেট নেন ফার্গুসন। হেনরি ৩ উইকেট নেন ২৯ রানে। একটি করে উইকেট নেন বোল্ট, ডি গ্র্যান্ডহোম, নিশাম ও স্যান্টনার।

ব্যাটিংয়ের পর বোলিংয়েও সুবিধা করতে পারেনি শ্রীলঙ্কা। নিউজিল্যান্ডকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার মার্টিন গাপটিল ও কলিন মানরো। গাপটিল ফিফটি তুলে নেন ৩৯ বলে, মানরো ৪১ বলে। এই দুজনই জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন দলকে।

গাপটিল ৫১ বলে ৮ চার ও ২ ছক্কায় ৭৩, মানরো ৪৭ বলে ৬ চার ও এক ছক্কায় ৫৮ রানে অপরাজিত ছিলেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শ্রীলঙ্কা: ২৯.২ ওভারে ১৩৬ (থিরিমান্নে ৪, করুনারত্নে ৫২*, পেরেরা ২৯, মেন্ডিস ০, ধনঞ্জয়া ৪, ম্যাথুস ০, জিবন মেন্ডিস ১, থিসারা ২৭, উদানা ০, লাকমল ৭, মালিঙ্গা ১; ফার্গুসন ৩/২২, হেনরি ৩/২৯, বোল্ট ১/৪৪, গ্র্যান্ডহোম ১/১৪, নিশাম ১/২১, স্যান্টনার ১/৫)

নিউজিল্যান্ড: ১৬.১ ওভারে ১৩৭/০ (গাপটিল ৭৩*, মানরো ৫৮*; মালিঙ্গা ০/৪৬, লাকমল ০/২৮, উদানা ০,২৪, থিসারা ০/২৫)

ফল: নিউজিল্যান্ড ১০ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: ম্যাট হেনরি

রবিবারেই থেমে যাবে বৃষ্টি
২১ অক্টোবর ২০১৭ 376802 বার

সুষমা স্বরাজ ঢাকায়
২২ অক্টোবর ২০১৭ 375127 বার

কাঁদলেন মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ
০৪ অক্টোবর ২০১৭ 333228 বার