ঢাকা সকাল ৮:৪০, শনিবার, ৪ঠা এপ্রিল, ২০২০ ইং, ২১শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

আদর্শ সন্তান গড়তে হলে মেনে চলুন এই সাত পরামর্শ

প্রত্যেক বাবা-মা চান, তাদের সন্তান যেন মানুষের মতো মানুষ হয়। তারা চান, সন্তান যেন তাদের দেখভাল করে, তাদেরকে বুঝতে পারে, নম্র হয় এবং যৌক্তিকভাবে সবকিছু করে।

কিন্তু শিশু সন্তান তো আর এমনি এমনি এরকম হয়ে উঠবে না। তাদেরকে সেভাবে গড়ে তুলতে হবে। গবেষকরা বলছেন, সন্তানকে সবদিক থেকে বিবেচনা করে আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে বাবা-মার পদক্ষেপ গুরুত্বপূর্ণ।

এজন্য অভিভাবকদের সাতটি টিপস দিয়েছেন হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক। তারা বলছেন,
১. নিয়মিতভাবে সন্তানের সঙ্গে সময় কাটাতে হবে এবং তাদের সঙ্গে অর্থপূর্ণভাবে কথোপকথন চালিয়ে যেতে হবে।

২. সন্তানের রোল মডেল হওয়ার চেষ্টা করতে হবে। কারণ, সন্তানকে যখন সৎ এবং নিষ্ঠাবান হওয়ার কথা বলেন বাবা-মা, তখন তারা বাবা-মাকে দেখে যে, ওই রকম পরিস্থিতিতে বাবা-মা কী ধরনের আচরণ করে। সে কারণে নিজে ভালো কাজ করে সন্তানকে সেই পথ দেখাতে হবে।

৩. তাদেরকে মানবিক হতে শেখাতে হবে। এমনকি পরিচিতজনদের সঙ্গে ভালোভাবে মিশতে শেখাতে হবে। ঘৃণাত্মক বিষয় তাদের সঙ্গে শেয়ার না করাই ভালো।

৪. বাড়ির কাজে তাদের যুক্ত করতে হবে। কীভাবে দায়িত্ব নেওয়া যায়, সেটা তাদের শেখাতে হবে। এজন্য তাদেরকে ছোটবেলা থেকেই বিভিন্ন দায়িত্ব দিয়ে কাজ করাতে হবে। এক্ষেত্রে ছোটখাটো কাজ করানো যেতে পারে। শুরুতে নিজের কিছুটা ক্ষতি হলেও তাতে সন্তানের মঙ্গল হবে। এই যেমন, সন্তানকে দিয়ে বাড়ির বাজার-সওদা করানোর মতো কাজ করাতে পারেন।

৫. পরিচিতদের বাইরে অন্যদের সঙ্গেও সন্তানকে মিশতে দিতে হবে। তাদের সংগ্রাম সম্পর্কেও সন্তান জানলে সেটা দীর্ঘমেয়াদি উপকারে আসে।

৬. অন্যদের জন্য সন্তান কিছু করতে চাইলে উৎসাহ দিতে পারেন। এতে করে সন্তান মানবিক হয়ে গড়ে উঠবে। এমনকি পারলে সন্তানকে সেই কাজে পথ বাতলে দিতে পারেন।

৭. সন্তানের অনুভূতি বোঝার চেষ্টা করুন। তারা যেন যে কোনো ধরনের ধাক্কা সামলে নিতে পারে, সেজন্য দৃঢ় মনোবল তৈরি করতে শেখান।

বিজনেস বাংলাদেশ-/এমএ

এ বিভাগের আরও সংবাদ